Siloing কি? যেভাবে আপনার সাইটের Silo করবেন জেনে নিন

আসসালামু আলাইকুম । আশা করছি আল্লাহর রহমতে সবাই ভালো আছেন। জোবয়ের একাডেমিতে এটা প্রথম আর্টিকেল। যদিও Siloing নিয়ে একটা বেসিক টিউটোরিয়াল করেছিলাম সেখান থেকে হয়তো অনেকেই বিষয়টা ক্লিয়ার হতে পারেননি। তবে আজ চিন্তা নেই, আলোচনা হবে এ থেকে জেড পর্যন্ত। আসলে আমরা অনেকেই সাইলোইং নিয়ে বেশ আগ্রহী। ওয়েব সাইট কিংবা ইউটিউবে যখন সার্চ দেই তখন হাজার হাজার টিউটোরিয়াল পাওয়া যায়। সকল টিউটোরিয়ালে বলা হয়ে থাকে এটা করতে হবে আবার ওটা করতে হবে ইত্যাদি। কিন্তু বাস্তবে যখন সাইলোইং করতে বসি তখন দুই চোখে সরিশার ফুল দেখি। এর কারন হলো, যে কোন কাজ বলাটা খুব সহজ, কিন্তু করাটা খুব কঠিন। তবে মজার বেপার হলো, আপনি যদি সঠিক ভাবে আপনার সাইটে Siloing করতে পারেন তাহলে ধরে নিন এসইও যুদ্ধে আপনি সকলের চেয়ে অনেক দূর এগিয়ে আছেন। ফলাফল পাওয়া মাত্র সময়ের বেপার। চলুন বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।

Siloing কি?

প্রথমেই আমাদের জানতে হবে সাইলোইং কি? Siloing হলো একটা ওয়েব সাইটের ভিতর একই জাতিয় আর্টিকেলগুলোকে একটা গ্রুপিং কারা। যাতে সহজেই একজন ভিজিটর আপনার আর্টিকেলগুলো খুজে পায়। সাইলোইং সাধারনত দুটি ভাবে করা হয়, একটি হলো ওয়েব সাইটের গঠনগত দিক থেকে অন্যটি হলো নিজেদের ভিতর ইন্টারনাল্যি লিংকের মাধ্যমে। আমরা সকল বিষয়ই আস্তে আস্তে পরিস্কার হয়ে যাবো।

Siloing কেন করবো?

সাইলোইং কেন করবো এর ব্যখ্যা করতে গেলে হয়তো রাত পার হয়ে যেতে পারে। তবে এই মূহুর্তে অল্প কয়েক পয়েন্ট দিয়ে বোঝানোর চেষ্টা করছি।

১। আমরা জানি ওয়েব সাইট যতো ইউজার ফ্রেন্ডলি হবে ততো ভিজিটর বেশি সময় আপনার সাইটে থাকবে। ফলে বাউন্সরেট কমে যাবে এবং ডিউয়েল টাইম বেড়ে যাবে। সঠিক সাইলোইং ভিজিটর ধরে রাখার অন্যতম একটা উপায় হতে পারে।

আরো পড়ুন ::  এফিলিয়েট? এডসেন্স? লোকাল এসইও নাকি মার্কেটপ্লেস?

২। গুগলকে আপনার সাইটের গভিরতা বোঝানোর জন্য অবশ্যই ইন্টারনাল লিংকিং করতে হবে। যতো ভালো লিংকিং করতে পারবেন ততো গুগলের কাছে আপনি গ্রহনযোগ্যতা পাবেন। এটি অন্যতম র‌্যাংকিং ফ্যাক্টর।

৩। আমরা জানি একটা সাইটে যখন অনেক বেশি আর্টিকেল পাবলিষ্ট হয় তখন সকল আর্টিকেলের দিক সমান নজর দেয়াটা কঠিন হয়ে পড়ে, এক্ষেত্রে সাইলোইং তার সমাধান। আবার অল্প ব্যকলিংক করে তার সুফল সকলের মাঝে ছড়িয়ে দিতে Siloing এর বিকল্প নেই।

সাইলোইং এর পদ্ধতি

আশা করছি আজকের পরে সাইলোইং নিয়ে আর কোন দ্বিধা থাকবে না। তবুও যদি কারো বুঝতে অসুবিধা হয় তাহলে আমাদের ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করে সেখানে প্রশ্ন করুন। শুরু করার আগে আর একটা কথা বলে নেই, আপনার ওয়েব সাইটের কিওয়ার্ড রিসার্চ করার পর পরই সাইলোইং প্লানটা করে ফেলুন তাহলে ভবিষ্যতে আপনাকে বিপদে পড়তে হবে না। অন্ধের মত চোখ বন্ধ করে কাজ করার চেয়ে দেখে শুনে কাজ করাটা অন্তত বুদ্ধিমানের পরিচয়।

ধরুন আপনার একটি পাওয়ার টুলস্ নিয়ে ওয়েব সাইট আছে। সেই ওয়েব সাইটিতে তিনটি ক্যাটাগরি করা হয়েছে। কর্ডলেস পাওয়ার টুলস্, ইলেক্ট্রিক পাওয়ার টুলস্ এবং গ্যাস পাওয়ার টুলস্‌ । ক্যাটাগরি সাধারনত হোম পেজে থাকে এটা স্বাভাবিক।

এবার ধরুন কর্ডলেস পাওয়ার টুলের অধিনে আপনি তিনটা মানি আর্টিকেল প্রকাশ করলেন, যেমন- বেষ্ট কর্ডলেস ড্রিলস্, বেস্ট কর্ডলেস প্লানাস্ ও বেষ্ট কার্ডলেস হ্যামার।

প্রতিটা মানি আর্টিকেলের অধিনে যদি আপনি আরো তিনটা করে মোট নয়টা ইনফো আর্টিকেল দেন তাহলে চেইনটা কিন্তু আরো বড় হয়ে গেলো।

পুরো ঘটনাটা আসলে কি হলো ছবিটা ভালো করে দেখে বুঝে নিন। একটু পরেই মূল ঘটনায় প্রবশে করবো।

 

what is siloing

মূল বিষয় জেনে নিন

এবার আমরা মূল সমস্যায় চলে যাবো। কার সাথে কার কানেকশন হবে? আমরা সাইলো করতে গেলে এই প্রশ্নটাই বার বার মাথায় ভিতর ঘুরপাক খেয়ে থাকে। মানি আর্টিকেলের সাথে ইনফো আর্টিকেলের নাকি ইনফো আর্টিকেলের সাথে মানি আর্টিকেলের?

আরো পড়ুন ::  নিশ সিলেকশন করুন সহজ কিছু উপায়ে ও বুদ্ধি খাটিয়ে

এই বিষয়টা বুঝতে হলে আমাদের ব্রেইনকে খুব ভাবে কাজে লাগাতে হবে। কারন হলো, আমি যে প্রসেসে কাজ করি, আপনি সে প্রসেসে কাজ নাও করতে পারেন। আপনি কোন আর্টিকেলটাকে টার্গেট করেছেন সেটা আপনি ভালো জানবেন। আমি মূলত ১:৩ অনুপাকে কাজ করি। অর্থাৎ একটা মানি আর্টিকেলের বিপরিতে তিনটা ইনফো আর্টিকেল।

পুরো ঘটনাটিতে বোঝাতে হলে আমরা প্রতিটা ক্যাটাগরি বা আর্টিকেলকে পানি ভর্তি পাত্রের সাথে তুলোনা করবো। ক্যাটাগরির সাথে যদি তিনটা মানি আর্টিকেল যু্ক্ত থাকে তাহলে আমরা বুঝে নেবো, পানি যুক্ত পাত্রটি তিনটা ছিদ্র হয়ে গেছে যার পানিগুলো তিনটা মানি আর্টিকেলের দিকে যাচ্ছে।

যদি মানি আর্টিকেল থেকে তিনটা ইনফো আর্টিকেলে কানেকশন দেই তাহলে বুঝতে হবে মানি আর্টিকেলও তিনটা ছিদ্র হয়ে গেছে এবং তার পানিগুলো তিনটা ইনফো আর্টিকেলের দিকে যাচ্ছে।

এই পানিকে আমরা লিংক জুস বলে থাকি। আপনি যতো কানেকশন করবেন আপনার লিংকজুস ততো পাস হবে।

এবার ধরেন, কোন ভাবে হোম পেজে আপনি ব্যকলিংক করে এর লিংক জুস বাড়াতে থাকলেন। তাহলে তার জুস পাস হবে প্রথমে তার ক্যাটাগরি তিনটায়, পরে ক্যাটাগরি থেকে মানি আর্টিকেলে, আবার মানি আর্টিকেল থেকে ইনফো আর্টিকেলে। যদি আমরা এভাবে কানেকশন দিয়ে থাকি।

অথচ আমরা কিন্তু সাধারনত মানি আর্টিকেলগুলোকেই বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকি। যদি আমরা বেস্ট কর্ডলেস ড্রিলস্ মানি আর্টিকেল এ লিংক জুস বাড়াই তাহলে স্বাভাবিক ভাবে তার ইনফো আর্টিকেলগুলেতে তা পাস হয়ে যাবে। আর যদি আপনি ইনআর্টিকেল গুলোর সাথে কানেকশন না করেন তাহলে গুগল আপনার কনটেন্ট ইনডেফত হিসেবে ধরবে না। তার মানে কানেকশন আপনাকে করতেই হবে এবং বেশি বেশি করতে হবে।

এবার যদি একটু বুদ্ধি খাটিয়ে বেষ্ট কর্ডলেস ড্রিলস্ (যেহেতু এটা নিয়ে কাজ করি) মানি আর্টিকেলের সাথে মূল ক্যাটাগরির একটা কানেশন করে দেই তাহলে ক্যাটাগরিতে কিন্তু লিংক জুস পাস হবে, আর সে জুস অটোমেটিক্যাল্যি বেষ্ট কর্ডলেস প্লানার ও বেষ্ট কর্ডলেস হ্যামারস এবং তার ইনফো আর্টিকেলগুলেতে পারস হয়ে যাবে। অথচ আমরা কিন্তু লিংকজুস বাড়িয়েছিলাম মাত্র বেষ্ট কর্ডলেস ড্রিলস্ এর। কিন্তু ফল ভোগ করছে ক্যাটাগরির সকলে। বুদ্ধিটা আসলে এভাবেই কাজে লাগাতে হবে।

আরো পড়ুন ::  রেডি ওয়েব সাইট কেনার আগে অবশ্যই বিষয়গুলো জেনে নিন

ঠিক একই ভাবে আমরা যদি ইনফো আর্টিকেলগুলোকে কাজে লাগিয়ে মানি আর্টিকেল ও ক্যাটাগরিতে কানেকশন করে দেই তাহলে তার শক্তি বাড়িয়ে দিতে পারি। এবং লিংক জুসের সমান বন্টন করতে পারি।

সব শেষে

বিষয়টা নিয়ে একটু শতর্ক করে দেই, ভুল করে যদি কোন ভাবে লিংক জুস বন্টন এলোমেলো করে দেই তাহলে বিষয়টা কিন্তু হিতের বিপরিত হয়ে যেতে পারে। কিংবা ভুল কানেকশনের কারনে একটা হজবরল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়ে যেতে পারে। তাই কিওয়ার্ড রিসার্চের পরই যদি আমরা সাইলো প্লানটা করে ফেলতে পারি তাহলে অন্তত এই ভুল সিদ্ধান্ত থেকে হয়তো বেচে যেতে পারি। তাই সব সময় বলে থাকি “সাইটের জন্য প্লানিং একটা বড় ফ্যাক্ট”

তো লেখাটা কেমন হলো জানি না, আমার এই লেখা নিয়ে যদি কারো কোন আপত্তি বা পরামর্শ থাকে তাহলে কমেন্ট করতে পারেন, কন্ট্রাক্ট পেজের মাধ্যমে মেইল করতে পারেন অথবা ফেসবুকে গুপে জানাতে পারেন। আমরা আপনার পরামর্শ আন্তরিক ভাবে গ্রহন করবো। আর হ্যা সাবস্ক্রাইব করতে পারেন আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে।

2 thoughts on “Siloing কি? যেভাবে আপনার সাইটের Silo করবেন জেনে নিন”

  1. স্যার, আমি নিজেদের ভিতর ইন্টারনাল্যি লিংকের মাধ্যমে সাইলোইং করতে চাচ্ছি। এক্ষেত্রে আমি আমার ওয়েব সাইটে শুধু ইনফো আর্টিকেল গুলো ব্লগ ক্যাটাগরির ভিতরে দিতে চাচ্ছি, তাহলে এখন কিভাবে কন্টেন ক্যাটাগরি গুলো ভাগ করে সেগুলো ভিতরে আবার সাইয়োলিং করতে পারি???

    আমার সাইটে যদি কোনো মানি আর্টিকেল না থাকে কিংবা মানি আর্টিকেল গুলো যদি সাইটের আলাদা ক্যাটাগরিতে থাকে তাহলে আমি কি করবো?? মানি আর্টিকেলের সাথে ইনফো আর্টিকেলের সাইয়োলিং না করলে কি কোনো সমস্যা হবে???

    কিওয়ার্ড রিসার্চের পরই যদি আমি সাইলো প্লানটা করি তাহলে কি ভবিষ্যতে আমাকে আর সাইলো প্লান করতে হবেনা? নাকি সব সয়মই আমাকে সাইলোইং নিয়ে ভাবতে হবে?

    Reply

Leave a Comment