সফল ফ্রিল্যান্সার হতে হলে যে বিষয়গুলো মাথায় রাখতে হবে

আসসালামু আলাইকুম। সবাইকে আবারো জোবায়ের একাডেমির পক্ষ থেকে স্বাগত জানাচ্ছি। বরাবরের মতো আজ সূচনাটা খুব বেশি লম্বা করবো না। আজকের টপিক সফল ফ্রিল্যান্সার হতে হলে আপনাকে কোন কোন যোগ্যতা থাকতে হবে কিংবা কি কি করতে হবে সে বিষয়ে আমার কিছু অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে চাচ্ছি। চলুন তাহলে শুরু করা যাক।

মনকে আগে স্থির করুন

আমাদের মন সহজেই অন্যের দ্বারা প্রবাভিত হয়। পাশের বাসার মন্টু মিয়া এসইও ফ্রিল্যান্সিং করে মাসে ৫০ হাজার টাকা ইনকাম করে। ফ্রিল্যান্সার মন্টু সাহেবের কোর্স করলেই ইনকাম নিশ্চিৎ। মন্টু মিয়ার ছেলে, বয়স মাত্র ১৫ বছর, গ্রাফিক্স ডিজাইন শিখেই মাসে ১ লক্ষ টাকা ইনকাম করে। এধরনের নানান বিষয় আমাদের চারপাশে ঘুরতে থাকে। ঠিক তখনই আমাদের মাথার ভিতর ঘুরতে থাকে কি করবো কিংবা কি করা যায়? মূল বিষয় হলো আগে আপনি নিজের মনকে স্থির করেন। নিজেকে প্রশ্ন করেন, ফ্রিল্যান্সিক করার মত ধৈর্য্য কিংবা সময় আপনার হাতে আছে কিনা। যদি আপনি সিদ্ধান্ত নিয়েই থাকেন আপনি ফ্রিল্যান্সিং করবেন তাহলে পরের প্যারাটি আপনার জন্য।

অন্যের সফলতার গল্প শোনা বন্ধ করুন

আমরা সবাই সফলতা দেখতে পাই, কিন্তু সফলতার পিছনে মূল গল্পটা আমরা শুনতে চাই না। আসলে কেউ শোনায় না। সবাই কেবল বলে যায়, আমি সফল, মাসে লক্ষ ডলার ইনকাম করি। কিন্তু একজন সফল ফ্রিল্যান্সার তৈরী হতে কতযে কাঠ খড় পোড়াতে হয় তা কেবল একজন ফ্রিল্যান্সারই জানে। বুঝতে হবে সফলতা এমনি এমনি ধরা দেয় না, তাকে অর্জন করে নিতে হয়। আমারা সফলতার গল্প শুনবো কিন্তু সেটা শুনে হুট হাট ডিসিশন নেবো না। মাথাকে ঠান্ডা রেখে এবার পরের প্যারাটা পড়ুন।

পছন্দের জায়গাটা খুজে বের করুন

আপনি যদি আমাকে প্রশ্ন করেন, কোন বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করলে আমি সফল হতে পারবো? আমার একবাক্যে উত্তর হবে আপনি এসইও শেখেন। কারন এসইও আমার ভালো লাগা টপিক আর যা নিয়ে বহুটা বছর কাটিয়েছি। ঠিক তেমনি ভাবে আপনি যদি একজন গ্রাফিক্স ডিজাইনারকে একই প্রশ্ন করে তখন সে উত্তর দেবে, আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্স করেন। এর কারন হলো, যে যেখানে কাজ করে মজা পায় মূলত সে তার ভিত্তিতেই উত্তর দিয়ে থাকে। তাই এক্ষেত্রে কারো কাছে প্রশ্ন না করে, নিজেকে প্রশ্ন করুন আপনার কোন টপিকটি ভালো লাগে? এসইও নাকি গ্রফিক্স ডিজাইন নাকি অন্য কোন বিষয়। আগেই বলে রাখছি হতাশ হওয়ার কারন নেই। আপনি যে টপিকই পছন্দ করেননা কেন, সেই টপিকেই হাজার হাজার সফল ব্যক্তি রয়েছে। প্রয়োজনে সময় নিন, অনলাইনে ঘাটাঘাটি করুন। আর এসইও নিয়ে আগ্রহ থাকলে জোবায়ের একাডেমি লিখে ইউটিউবে সার্চ দিলেই পেয়ে যাবেন ফ্রি এসইও কোর্স। সেখান থেকে কয়েকটি ভিডিও দেখলেই ধারনাটি পেয়ে যাবেন।

শিখতে হবে একটু ভিন্ন ভাবে

দিন যত যাচ্ছে, প্রতিটা কাজের কম্পিটেশন ততো বাড়ছে। তাই আপনাকে আগে পরিপূর্ন ভাবে শিখতে হবে। সবাই কাজ শিখতে পারে আর যারা একটু ভিন্ন ভাবে এডভান্স কাজ শিখতে পারে তাদের ডিমান্ড কিন্তু প্রচুর। আমাদের সমাজে অনেক প্রতিষ্ঠান আছে, একটু বেসিক ধারনা দিয়েই নামিয়ে দেয় ফাইভারে গিগ খুলতে, নয়তো উৎসাহ দেয় আপওয়ার্কে কাজ করুন। তবে আমি বলছি, এটা সম্পূর্ন ভুল সিদ্ধান্ত। আগে একটা বিষয়ে খুব ভালো ভাবে শিখুন। প্রয়োজনে ৬ মাস থেকে ১ বছর সময় দিন। নিজেকে আগে যোগ্য প্রমান করুন। দেন কাজের পিছনে ছুটুন। যদিও আমি বলি, আপনি যদি শেখার পিছনে ছোটেন তাহলে কাজ আপনার পিছনে ছুটবে। আর যদি আপনি কাজের পিছনে ছোটেন তাহলে কাজ উল্টা দিকে পালিয়ে যাবে।

সময় মত বিভিন্ন কোর্স করে ফেলুন

একটা উদাহরন দিচ্ছি, যদি আপনি জোবায়েল একাডেমির ফ্রি কোর্স থেকে এসইও কোর্স করে থাকেন তাহলে পরবর্তিতে সময় পেলেই তার Premium SEO Course টি করে ফেলুন। সেটা করা হয়ে থাকলে, সুযোগ মতো আরো কিছু কোর্স করুন অন্য কোন প্রতিষ্ঠান থেকে। এতে আপনার এডভান্স নলেজ বাড়বে। আর নলেজ যতো বাড়বে আপনার সফলতা ততো দ্রুত আপনার দিকে আগাতে থাকবে। তাই বলবো শেখার বিকল্প নাই।

আজ এখানেই ইতি টানছি। আবারো হয়তো দেখা হবে নতুন কোন টপিক নিয়ে। সিদ্ধান্ত নিন, নিজেকে আগে তৈরী করুন। হাজার হাজার কাজ অনলাইনে ঘুরে বেড়ায় তাই কাজ নিয়ে ভাবতে হবেনা। আর বাইরের কাজ না করতে চাইলে। এসইও শিখে অন্তত নিজের কাজ নিজে করুন। সকলকে কষ্ট করে পড়ার জন্য ধন্যবাদ। আল্লাহ হাফেজ।

3 thoughts on “সফল ফ্রিল্যান্সার হতে হলে যে বিষয়গুলো মাথায় রাখতে হবে”

  1. ধন্যবাদ বিষয়টাকে এত চমৎকারভাবে অল্প কথায় তুলে ধরার জন্য। আমরা অনেকেই সফল হতে চাই কিন্তু কাজটির পিছনে বেশি সময় দিতে চাই না। নতুন নতুন ধারণাগুলো সম্পর্কে জানার চেষ্টাও করি না। আশা করি আপনার লেখাগুলো পড়ে নতুনরা খুব সহজেই সিদ্ধান্ত নিতে পারবে। জোবায়ের একাডেমির জন্য অনেক অনেক শুভকামনা।

    Reply
  2. ধন্যবাদ স্যর।ভালোবাসা নিবেন।আমি আপনার এসিও কোর্স ভিডিও দেখে এসিও শিখছি। দোয়া করবেন আমার জন্য।

    Reply

Leave a Comment